Breaking News

আম্পায়ারের শর্ত মানতে নারাজ মুমিনুল, বন্ধ তৃতীয় সেশনের খেলা

চলতি ঢাকা টেস্টের প্রথম সেশন বাংলাদেশ নিজেদের করে নিলেও দ্বিতীয় সেশনে দাপট দেখিয়েছে পাকিস্তান। লাঞ্চ বিরতির আগে ৭৮ রানে ২ উইকেট হারিয়েছিল পাকিস্তান। পাকিস্তানের দুটি উইকেটই তুলে নেন তাইজুল ইসলাম।

এরপর আজহার আলিকে নিয়ে রানের গতি বাড়াতে থাকেন বাবর আজম। দ্বিতীয় সেশনে কোনো উইকেট শিকার করতে পারেনি টাইগার বোলাররা। দ্বিতীয় সেশনে কোনো উইকেট না হারিয়ে স্কোরকার্ডে ৮৩ রান যোগ করেন বাবর-আজহার।

৭৫ বলে ৭ চার ও ১ ছয়ে হাফসেঞ্চুরি তুলে নেন বাবর। বাবর ৬০ ও আজহার ৩৬ রানে অপরাজিত আছেন। এদিকে তৃতীয় সেশনে মাঠে নামলেও ড্রেসিংরুমে ফিরে যেতে হয়েছে দুইদলকে। মূলত আলোকস্বল্পতার কারণে তৃতীয় সেশনের খেলা বন্ধ রয়েছে।

স্বল্প আলোয় খেলা চালিয়ে নিয়ে আম্পায়াররা একটি শর্ত দিয়েছিলেন। আর সেটি হলো বাকি ওভার গুলোতে বাংলাদেশকে স্পিনার ব্যবহার করতে হবে।

কিন্তু আম্পায়ারের শর্ত মানতে নারাজ বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল হক। তিনি পেস বোলার দিয়ে খেলা চালিয়ে যেতে চান। কিন্ত স্বল্প আলোয় পেসারদের খেলতে রাজি না পাকিস্তান। এ কারণে বাধ্য হয়েই তৃতীয় সেশনের খেলা বন্ধ রাখতে হয়েছে আম্পায়ারদের।

এর আগে ব্যাট করতে নেমে দারুণভাবে লড়তে থাকেন দুই ওপেনার আবিদ আলি ও আবদুল্লাহ শফিক। তাদের ওপেনিং জুটিতে অর্ধশতকের দেখা পায় পাকিস্তান। তবে এই জুটিকে বেশি দূর এগোতে দেননি বাংলাদেশি স্পিনার তাইজুল ইসলাম।

চট্টগ্রাম টেস্টে ৮ উইকেট শিকার করা তাইজুল ঢাকা টেস্টে পাকিস্তান শিবিরে শুরুতে আঘাত হানেন। তাইজুলের বলে বোল্ড হয়ে ২৫ রান করে সাঘঘরে ফিরেন শফিক। এরপর চট্টগ্রাম টেস্ট জয়ের মূল নায়ক আবিদ আলিকেও ফেরান তাইজুল।

চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১৩৩ ও দ্বিতীয় ইনিংসে ৯১ রান করেছিলেন আবিদ আলি। তবে ঢাকা টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৩৯ রান করেই ফিরতে হয় তাকে।

তাইজুলের বলে কাট করতে গিয়ে ব্যাটের কানা ছুঁয়ে বল আঘাত হানে স্ট্যাম্পে। এতে প্যাভিলিয়নের পথে হাঁটতে হয় আবিদ আলিকে। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত পাকিস্তানের সংগ্রহ ৫৭ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ১৬১ রান।

About Shakil

Check Also

দল বদল নিয়ে তুমুল সমালোচনায় এই সকল ফুটবল তারকা

গেল মৌসুম তো বটেই ২০২১ সালের আগস্টে সম্ভবত ফুটবল ইতিহাসের সবচেয়ে রোমাঞ্চকর দলবদলের সাক্ষী হয়েছিল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *