ইংল্যান্ডের সাথে ৩৮ বছরের রেকর্ড ভাঙলেন বাবর আজম

ইংল্যান্ডের সাথে ৩৮ বছরের রেকর্ড ভাঙলেন বাবর আজম

বাবর আজম রান করলে হাসে পাকিস্তান। আরও একবার সেটাই দেখা গেল। আগের দুই ওয়ানডেতে বড় রানের দেখা পাননি পাকিস্তান অধিনায়ক।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

দলের অবস্থাও ছিল যা তা। দুই ওয়ানডেতেই দুইশর আগে অলআউট হয় পাকিস্তান। এক ম্যাচ বাকি থাকতে ইংল্যান্ডের কাছে খুইয়ে বসে সিরিজও।

অবশেষে ‘মান বাঁচানোর লড়াইয়ে’ জ্বলে উঠলো বাবরের ব্যাট, পাকিস্তানও পেল বড় সংগ্রহ। বার্মিংহামে অধিনায়কের ক্যারিয়ারসেরা ১৫৮ রানের ইনিংসে ভর করে ৯ উইকেটে ৩৩১ রানের পাহাড় গড়েছে সফরকারিরা।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে এবারও শুরুতে ধাক্কা খেয়েছিল পাকিস্তান। ফাখর জামান ৬ রান করেই সাজঘরের পথ ধরেন, ২১ রানে প্রথম উইকেট হারায় দলটি।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

সেখান থেকে ইমাম উল হক আর বাবর আজম পাকিস্তানকে এগিয়ে নিয়েছেন। দ্বিতীয় উইকেটে ৯২ রানের জুটি গড়েন তারা। ইমাম কিছুটা ধীরগতির ব্যাটিং করলেও এই জুটিটি পাকিস্তানকে বড় সংগ্রহের ভিত গড়ে দিয়েছে।

৭৩ বলে ৭ বাউন্ডারিতে ৫৬ রান করে ফেরেন ইমাম। এরপর মোহাম্মদ রিজওয়ানকে নিয়ে ইনিংসের সবচেয়ে বড় জুটিটি গড়েন বাবর। এই যুগল ২০ ওভার একসঙ্গে থেকে যোগ করেন ১৭৯ রান। পাকিস্তানও চলে আসে তিনশর দ্বারপ্রান্তে।

৫৮ বলে ৪ চারের সাহায্যে ৭৪ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে রিজওয়ান যখন ফিরেছেন, পাকিস্তানের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ২৯২। এরপর অবশ্য দ্রুত রান তুলতে গিয়ে বেশ কয়েকটি উইকেট হারিয়েছে সফরকারিরা। ২৬ রানে শেষ ৬ উইকেটের পতন ঘটে পাকিস্তানের।

শোয়েব মাকসুদ (৫ বলে ৮), প্রমোশন পেয়ে ছয় নম্বরে আসা হাসান আলি (২ বলে ৪), ফাহিম আশরাফরা (৪ বলে ১০) ঝড় তুলতে গিয়ে দ্রুতই সাজঘরের পথ ধরেছেন। গোল্ডেন ডাকে ফেরেন শাদাব খান।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

তবে একটা প্রান্ত ধরে বাবর আজম দলকে এগিয়ে নিচ্ছিলেন, দারুণ সব চোখ ধাঁধানো শটে। পাকিস্তান অধিনায়কের ক্যারিয়ারসেরা ক্লাসিক্যাল ইনিংসটি শেষ পর্যন্ত থেমেছে ৪ বল বাকি থাকতে।

১৩৯ বলে ১৪ বাউন্ডারি আর ৪ ছক্কায় ১৫৮ রান করে ব্রাইডন কারসের ডেলিভারিতে টপএজ হয়েছেন বাবর। এটি ছিল তার ক্যারিয়ারের ১৪তম সেঞ্চুরি।

আর এই কীর্তি গড়ার পথে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন ওপেনার হাশিম আমলাকে পিছনে ফেলেছেন পাকিস্তান অধিনায়ক। একদিনের ক্রিকেটে আজ ইনিংসের হিসেবে দ্রুততম ১৪ সেঞ্চুরি করার নতুন রেকর্ড গড়েছেন বাবর।

এই ফরম্যাটে ১৪টি সেঞ্চুরি তুলে নিতে বাবরের লেগেছে মাত্র ৮১ ইনিংস। যেখানে সাবেক প্রোটিয়া ওপেনার হাশিম আমলার লেগেছিল ৮৪ ইনিংস।
ওয়ানডেতে দ্রুততম ১৪ সেঞ্চুরিঃ (ইনিংসের হিসেবে)

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

৮১ ইনিংস – বাবর আজম

৮৪ ইনিংস – হাসিম আমলা

৯৮ ইনিংস – ডেভিড ওয়ার্নার

১০৩ ইনিংস – বিরাট কোহলি

১০৪ ইনিংস – কুইন্টিন ডি কক

মাত্র দ্বিতীয় পাকিস্তানি অধিনায়ক হিসেবে আজ ইংল্যান্ডের মাটিতে সেঞ্চুরি কীর্তি গড়লেন বাবর আজম। ৩৮ বছর আগে ১৯৮৩ সালে প্রথম পাকিস্তানি অধিনায়ক হিসেবে এই কীর্তি গড়েছিলেন ইমরান খান।

পাশাপাশি এই ফরম্যাটে আজ পাকিস্তানের অধিনায়ক হিসেবে সর্বোচ্চ সেঞ্চুরির (৩ টি) রেকর্ডও ছুঁয়েছেন তিনি। তবে আজহার আলীর সর্বোচ্চ ৩টি সেঞ্চুরি করতে যেখানে লেগেছিলো ৩১ ইনিংস, সেখানে বাবরের লাগলো মাত্র ৯ ইনিংস।

ইংল্যান্ডের বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে সফল কারসেই। ডানহাতি এই পেসার ১০ ওভারে ৬১ রান খরচ করলেও নিয়েছেন ৫টি উইকেট। ৩ উইকেট সাকিব মাহমুদের।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

About অজয়

blank

Check Also

5 Best Defi Wallets For Decentralized Finance

The latter is where the FATF enters countries like Iran and North Korea with significant …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.