গেইল রাসেলদেরও হার মানায়, ২৯৫ স্ট্রাইক রেটে ব্যাটিং করে দলকে জিতালো ইমরান

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) পঞ্চম রাউন্ডের ম্যাচে জায়ান্ট মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবকে ২২ রানে হারিয়েছে প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব। ৬ ওভারের ম্যাচে ব্যাট হাতে তাণ্ডব চালিয়েছেন ইমরানউজ্জামান।

মঙ্গলবার (৮ জুন) বিকেএসপিতে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন মোহামেডান অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। দীর্ঘক্ষণ বৃষ্টি হলে ম্যাচ অফিসিয়ালরা ইনিংসপ্রতি ৬ ওভার করে খেলার সিদ্ধান্ত নেন।

সাকিবের টসের সিদ্ধান্তকে ভুল প্রমাণ করে প্রথম ওভার থেকেই মোহামেডানের ওপর চড়াও হন দোলেশ্বরের দুই ওপেনার ইমরানউজ্জামান ও শামীম হোসেন পাটোয়ারি।

একপর্যায়ে শামীমের চেয়েও বিধ্বংসী হয়ে ওঠেন ইমরান। তাসকিন আহমেদের করা প্রথম ওভারে দল জড়ো করে ১৮ রান। পরের ওভারে সাকিব খরচ করেন ১৭ রান।

তৃতীয় ওভার করতে আসেন রুয়েল মিয়া, তিনি খরচ করে বসেন ২৩ রান! ৩ ওভার শেষে দোলেশ্বরের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৫৮ রান, কোনো উইকেট না হারিয়ে।

সাকিবের করা দ্বিতীয় ওভারে একটি উইকেট হারায় দোলেশ্বর, তবে সেই ওভারেও আসে ১০ রান। সাকিব অবশ্য ‘মূল্যবান’ উইকেটটাই পেয়েছেন।

আবু হায়দার রনির ক্যাচে পরিণত করে সাকিব সাজঘরে ফেরান ইমরানকে। তার আগে মাত্র ১৪ বলে ৪১ রানের ইনিংস খেলেন ইমরান, হাঁকান ২টি চার ও ৫টি ছক্কা।

পঞ্চম ও ষষ্ঠ ওভারে রানের লাগাম টেনে ধরে মোহামেডান, নাহলে দোলেশ্বরের দলীয় সংগ্রহ তিন অঙ্কে পৌঁছালেও অবাক হওয়ার কিছু ছিল না।

রাহী পঞ্চম ওভারে ৪ রানের বিনিময়ে দুটি উইকেট শিকার করেন। পরের ওভারে রুয়েল একটি উইকেট নিয়েছেন ৬ রানের খরচায়।

শামীম ১৬ বলে ১টি চার ও ২টি ছক্কা হাঁকিয়ে ২৯ রান করে অপরাজিত থাকেন। দোলেশ্বরের হয়ে গোল্ডেন ডাকের শিকার হন ফরহাদ রেজা ও ফজলে মাহমুদ রাব্বি।

নির্ধারিত ৬ ওভার শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে দোলেশ্বরের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৭৮ রান। জবাবে ব্যাট করতে নেমে প্রথম বলেই ওপেনার পারভেজ হোসেন ইমনকে হারায় মোহামেডান।

সাকিব দ্বিতীয় বলে সিঙ্গেল নিয়ে স্ট্রাইক দেন ওপেনিংয়ে নামা শুভাগত হোমকে। তবে ইমনের মত তিনিও গোল্ডেন ডাকের শিকার হন শফিউল ইসলামের বলে।

শেষপর্যন্ত নির্ধারিত ৬ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে মোহামেডানের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৫৫ রান। শেষ ওভারে আউট হওয়ার আগে সাকিব ১৪ বলে ২২ রান করেন।

২টি চার ও ১টি ছক্কা হাঁকালেও তা দলকে জয় এনে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট ছিল না। ইরফান শুক্কুর ৮ বলে ১১ রান করে অপরাজিত থাকেন। ১১ বলে ১৬ রান করে আউট হন নাদিফ চৌধুরী। দোলেশ্বরের পক্ষে শফিউল একাই শিকার করেন তিনটি উইকেট।

About অজয়

Check Also

শেষের দিকে ব্যাট করতে নামা ক্রিকেটার আজ ওপেনিং করে দেখালেন চমক

বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে ঢাকা প্রিমিয়ার টি-টোয়েন্টি লিগে টানা দ্বিতীয় জয় পেয়েছে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স। এই জয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *