Breaking News

দ্বিতীয় টেস্ট পাকিস্তানের বিপক্ষে আশার আলো খুজে পাচ্ছে মমিনুল

অল রাউন্ডার সাকিব আল হাসানের প্রত্যাবর্তনে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে অধিনায়ক মোমিনুল হক বলেছেন এর ফলে দ্বিতীয় ও চূড়ান্ত টেস্টে পাকিস্তানের বিপক্ষে অনুপ্রেরণা পাবে বাংলাদেশ। সাকিবের প্রত্যাবর্তন দলীয় কম্বিনেশনে সহায়তা করবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

সফরকারী পাকিস্তানের কাছে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ ৩-০ ব্যবধানে হেরে যাবার পর দুই টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচেও আট উইকেটে পরাজিত হয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ।

যদিও প্রথম ইনিংসে ৪৪ রানের লিড নিয়েছিল টাইগাররা। সবগুলো ম্যাচেই দলের বাইরে ছিলেন সাকিব। টি -২০ বিশ্বকাপে হ্যামস্ট্রিং ইনজুরিতে পড়েন টাইগার অল রাউন্ডার।

অবশ্য টি-২০ সিরিজে না থাকলেও প্রথম টেস্ট ম্যাচের স্কোয়াডের অন্তর্ভুক্ত ছিলেন সাকিব আল হাসান। কিন্তু ফিটনেস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হওয়ায় শেষ মুহূর্তে দল থেকে বাদ পড়েন তিনি।

দলের জন্য এই অল রাউন্ডারের গুরুত্ব তুলে ধরে মোমিনুল বলেন, ‘সাকিব পাশে থাকলে অধিনায়ক হিসেবে আমার কাছে সবকিছু সহজ হয়ে যায়।

এই মুহূর্তেও তার কারণে সবকিছু সহজ হয়ে গেছে। আপনারা জানেন তিনি এমন এক খেলোয়াড় যার মধ্যে দুটি গুন রয়েছে। তিনি আমাদের এমন একটি কম্বিনেশন পাইয়ে দিতে পারেন যাতে আমাদের খেলাটা অনেক সহজ হয়ে যায়। এখন আমরা চার বোলার ও সাত ব্যাটারের ঐতিহ্যগত কম্বিনেশনে ফিরতে পারব।’

একইভাবে ফাস্ট বোলার তাসকিন আহমেদের ফিটনেস রিপোর্টের জন্যও অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন মোমিনুল। প্রথম টেস্টে খুব একটা কার্যকরী হতে পারেনি বাংলাদেশের ফাস্ট বোলিং। পাকিস্তান যেখানে ১৬ উইকেট দখল করেছে সেখানে ২ উইকেট লাভ করেছে বাংলাদেশ।

মোমিনুল বলেন, চট্টগ্রামের পিচ তাসকিনের জোরালো বোলিংকে মিস করেছে।

তিনি বলেন, ‘আগামীকাল টসের আগে আমরা কন্ডিশন পর্যবেক্ষণ করব। তবে যেহেতু সামনে নিউজিল্যান্ড সিরিজ আছে তাই আমরা তাসকিনকে নিয়ে খুব একটা ঝুঁকি নিতে চাই না।’

প্রথম টেস্টে দুই ইনিংসেই ব্যর্থ হয়েছে বাংলাদেশের টপ অর্ডার। দুই ইনিংসে যথাক্রমে ৪৯ ও ৩৯ রানে চার উইকেট হারানোটা ম্যাচ হারের জন্য একটি গুরুত্বপূরর্ণ কারণ ছিল। পাকিস্তানের বিপক্ষে হারের গণ্ডি থেকে বের হতে হলে স্বাগতিক দলকে পরাজয় থেকে শিক্ষা নিতে হবে।

About Shakil

Check Also

দল বদল নিয়ে তুমুল সমালোচনায় এই সকল ফুটবল তারকা

গেল মৌসুম তো বটেই ২০২১ সালের আগস্টে সম্ভবত ফুটবল ইতিহাসের সবচেয়ে রোমাঞ্চকর দলবদলের সাক্ষী হয়েছিল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *