সাকিব-মুস্তাফিজকে নিয়ে যে সিদ্ধান্ত দিলো স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

সাকিব-মুস্তাফিজকে নিয়ে যে সিদ্ধান্ত দিলো স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলার জন্য ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আিইপিএল) থেকে ১৯ মে বাংলাদেশে ফেরার কথা ছিল সাকিব আল হাসান ও মুস্তাফিজুর রহমানের। তবে অনির্দিষ্টকালের জন্য আইপিএল স্থগিত হওয়ায় পূর্ব নির্ধারিত সময়ের আগেই দেশে ফিরছেন তাঁরা দুজন।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

করোনার পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় সারা দেশ জুড়ে চলছে লকডাউন। সেই সঙ্গে ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে ভারতের করোনা পরিস্থিতি। এমন সময় দেশে ফিরলে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে সাকিব-মুস্তাফিজকে। দেশের একটি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম।

সাকিব ও ‍মুস্তাফিজের কোয়ারেন্টাইন শিথিল করার জন্য বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের শরণাপন্ন হয়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। তবে আবেদন করেও তাঁদের কোয়ারেন্টাইনের সময়সীমা শিথিল করা যায়নি।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

এ প্রসঙ্গে অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম বলেন, ‘সাকিব ও মুস্তাফিজের কোয়ারেনটাইন বাধ্যতামূলক। বিসিবি’র পক্ষ থেকে আমাদের কাছে আবেদন করেছিল কিন্তু আমরা না করে দিয়েছি। কারণ নিয়মানুযায়ী ওদের ১৪ দিনের কোয়ারেনটাইন করতেই হবে।’

আইপিএলের এবারের আসরে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলেছেন সাকিব আর রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে মাঠ মাতিয়েছেন মুস্তাফিজ। টুর্নামেন্টটি স্থগিত হওয়ার আগে রাজস্থানের হয়ে সবগুলো ম্যাচেই খেলেছেন মুস্তাফিজ আর কলকাতার হয়ে সাকিব হয়ে সুযোগ পেয়েছিলেন তিন ম্যাচ।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

এদিকে বর্তমানে ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের কোনো ফ্লাইট চালু না থাকলেও বিশেষ ব্যবস্থায় সাকিব-মুস্তাফিজকে দেশে ফেরানোর পরিকল্পনা করছে বিসিবি। এ ছাড়া বিসিসিআই জানিয়েছে, আইপিএল থেকে সবার দেশে ফিরতে সবরকম ব্যবস্থাই তারা করবে।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

About অজয়

blank

Check Also

Panel Software — What You Should Search for in a Table Software Package

Whether you are a small business or perhaps an enterprise, board computer software can be …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.