Breaking News

১ম বারের মত রেকর্ড গড়লো সৌম্য নাঈম

বাংলাদেশের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে সবকয়টি উইকেট হারিয়ে ১৫২ রান সংগ্রহ করে জিম্বাবুয়ে।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৮ উইকেট হাতে রেখে জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই পেসার মোস্তাফিজুর রহমানের বলে সৌম্য সরকারের হাতে ক্যাচ তুলে দেন জিম্বাবুইয়ান ওপেনার মারুমানি।

ডিপ মিডউইকেট থেকে দৌড়ে এসে দুর্দান্ত ড্রাইভে সৌম্য সরকার ক্যাচটি ধরেন। তাতে ১০ রানে ভাঙে উদ্বোধনী জুটি।

১০ রানে জিম্বাবুয়ে প্রথম উইকেট হারানোর পর ওয়েসলি মাধেভেরে ও রেগিস চাকাবা শক্ত অবস্থান নেন। অবশেষে এই জুটি ভাঙলেন সাকিব আল হাসান। তাদের ৬৪ রানের জুটি ভেঙে দিয়েছেন তিনি ফিরতি ক্যাচে।

মাধেভেরে ২৩ বলে ২৩ রানে আউট হন। বিপজ্জনক হয়ে ওঠা রেগিস চাকাবাকে বিদায় করলো বাংলাদেশ। ১১তম ওভারে শরিফুল ইসলামের প্রথম বলে নুরুল হাসান সোহান তাকে রান আউট করেন। ২২ বলে ৫ চার ও ২ ছয়ে ৪৩ রান করেন জিম্বাবুয়ান ওপেনার।

শরিফুলের ওভারে চার বলের ব্যবধানে সিকান্দার রাজাও আউট হন। তিন বল খেলে রানের খাতা না খুলে সোহানকে পেছনে ক্যাচ দেন স্বাগতিক অধিনায়ক।

বাংলাদেশের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে শুরুতে লড়াই করলেও ইনিংসের মাঝে পথ হারায় তারা। সৌম্য সরকার এলবিডব্লিউ করেন মারিসাই মুসাকান্দাকে।

শেষ পর্যন্ত ১৫২ রানে অলআউট হয় জিম্বাবুয়ে। মোস্তাফিজুর রহমান নেন ৩ উইকেট। এছাড়াও দুটি করে উইকেট নিয়েছেন শরিফুল ইসলাম এবং মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন। একটি করে উইকেট নিয়েছেন সাকিব আল হাসান এবং সৌম্য সরকার।

১৫৩ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে রেকর্ড পার্টনারশীপ করেছেন দুই ওপেনার ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার এবং শেখ নাঈম হাসান।

প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ওপেনিং জুটিতে ১০০ রানের পার্টনারশিপ গড়ে তুলেছেন এই দুই ওপেনার।

১০২ রানের পার্টনারশিপ করে রান আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন সৌম্য সরকার। ৪৫ বলে চারটি চার এবং দুটি ছক্কার সাহায্যে ৫০ রান করে রান আউট হন তিনি। দলীয় ১২৩ রানের মাথায় দ্বিতীয় রান আউটের শিকার হন রিয়াদ। ১২ বলে ১৫ রান করেন রিয়াদ।

অন্য প্রান্ত থেকে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন মোঃ নাঈম শেখ। ৫২ বলে ছয়টি চারের সাহায্যে ৬৬ রান করে অপরাজিত থাকেন নাঈম শেখ।

1এছাড়াও ১৬ রান করে অপরাজিত থাকেন নুরুল হাসান সোহান। দুই দলের মধ্যকার দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে আগামীকাল।

বাংলাদেশ একাদশ: নাঈম শেখ, লিটন দাস (উইকেটরক্ষক), সাকিব আল হাসান, সৌম্য সরকার, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), আফিফ হোসেন, নুরুল হাসান সোহান, শেখ মেহেদী হাসান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, শরিফুল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান।

জিম্বাবুয়ে একাদশ: রায়ান বার্ল, সিকান্দার রাজা, রেগিস চাকাভা, লুক জঙ্গি, ওয়েসলে মাধভের, তাদিওয়ানাশে মারুমানি, ওয়েলিংটন মাসাকাদজা, ব্লেসিং মুজুরাবানি, ডিয়ন মায়ার্স, রিচার্ড এনগারাভা ও তারিসাই মুসাকান্দা।

About অজয়

Check Also

১ম বার এসেই বাংলাদেশকে নিজের ২য় বাড়ি বানিয়ে নিলেন অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটার

সব শর্ত মেনে তা পালনে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের ওপর অনেক খুশি টিম অস্ট্রেলিয়া। ফুরফুরে মেজাজে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *